বিনোদন

ডিসনী প্লাস কি? কিভাবে ডিসনী প্লাস একাউন্ট খুলবেন জেনে নিন

ডিজনি প্লাস বর্তমানে খুবই জনপ্রিয় অনলাইন স্ট্রিমিং মাধ্যম এবং নেটফ্লিক্সের প্রতিদ্বন্ধী। যারা নেটফ্লিক্স সম্পর্কে জানেন তারা অবশ্যই ইতিমধ্যে জানেন যে এখন অনলাইনে স্ট্রিমিং ভিডিও দেখার খুবই জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হচ্ছে নেটফ্লিক্স। কিন্তু ডিজনি প্লাস বর্তমানে খুবই জনপ্রিয়তা লাভ করেছে এর কারণ হিসেবে দেখা হচ্ছে ছোটদের জন্য ভিডিও কনটেন্ট নিয়ে আসা। নেটফ্লিক্সে মূলত ছোটদের জন্য খুব কম ভিডিও কনটেন্ট রয়েছে তবে দিস্নে প্লাস নতুন ভাবে তাদের যাত্রা শুরু করলেও ছোটদের কথা মাথায় রেখে তাদের কনটেন্টগুলো তৈরি করছে।

মার্ভেল সহ বিভিন্ন কোম্পানির সাথে একই সাথে কাজ করে বলে তাদের শো গুলো ডিজনি ক্লাস এর মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে। ডিজনি প্লাস এর মাধ্যমে আপনি উপভোগ করতে পারবেন অনেক মজাদার কনটেন্ট। আপনার পছন্দের টিভি সিরিজ কেউ হয়তোবা আপনি দেখতে পারবেন ডিসনি প্লাস এর মাধ্যমে। ডিজনি প্লাস এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হল কম খরচে অনেক ভাল কনটেন্ট। নেটফ্লিক্স সবচেয়ে বিস্তৃত অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম হলেও ডিসনি প্লাস এর জনপ্রিয়তা বাড়ার কারণ হচ্ছে কম খরচে সাবস্ক্রিপশন । বার্ষিক এবং মাসিক খুব কম খরচে ডিজনি প্লাস এর সাবস্ক্রিপশন নেওয়া যায়।

ডিজনি প্লাস এর সুবিধা অসুবিধা রয়েছে যেমন এটি এখনো পর্যন্ত গ্লোবালি আসেনি। ইউরোপের শুধু মাত্র চারটি দেশে দেখা যায় ডিজনি প্লাস। তবে পরবর্তীতে ডিজনি প্লাস অনলাইন স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম বিশ্বব্যাপী চালু হবে এমনটা আশা করা যাচ্ছে। ডিজনি পূর্ব থেকেই অনেক নামকরা একটি কোম্পানি যেখানে ছোটদের জন্য খুবই ভাল ভাল কনটেন্ট এবং অ্যানিমেশন কনটেন্ট প্রচারিত হয়। সেসকল কন্টেন্টগুলি আপনি দেখতে পারবেন ডিজনি প্লাস এর মাধ্যমে। এর জন্য আপনাকে একটি একাউন্ট ক্রিয়েট করতে হবে। এরপরে বার্ষিক অথবা মান্থলি সাবস্ক্রিপশন কিনে উপভোগ করতে পারবেন ডিজনি প্লাস এর অনুষ্ঠানসমূহ। যেকোনো এন্ড্রয়েড টিভি কম্পিউটার ল্যাপটপ এ ডিজনি প্লাস সাপোর্ট করে এবং আপনার গেমিং কনসোল এও আপনি ডিজনি প্লাস দেখতে পারেন।

ডিজনি প্লাস একাউন্ট কি

ডিজনি প্লাস খুবই জনপ্রিয় একটি স্ট্রিমিং মাধ্যম। নেটফ্লিক্স, হুলু এ ধরনের স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম গুলোর পাশাপাশি ডিজনি প্লাস এখন খুবই জনপ্রিয়। তবে ডিজনি + সারা বিশ্বের সকল দেশে এভেলেবেল নয়। ডিজনি প্লাস হতে সিনেমা, এনিমেশন মুভি এবং ওয়েব সিরিজ সমূহ দেখা যায়। মান্থলি এবং ইয়ারলি প্ল্যান এর যেকোনো একটি ব্যবহারকারী বেছে নিয়ে ডিসনি প্লাসের একাউন্ট খুলতে পারে। ডিজনি প্লাসের একাউন্ট শেয়ার করা যায় এবং একটি অ্যাকাউন্ট 7 জন পর্যন্ত শেয়ার করা যায়। অ্যাকাউন্ট শেয়ার অনেকটা নেটফ্লিক্স এর স্ক্রিন শেয়ার এর মত। ডিসনি প্লাসের সাথে PIXER,MARVEL,STAR WARS, NATIONAL GEOGRAPHY এর কোলাবরেশন রয়েছে তাই এ সকল প্ল্যাটফর্ম এর সকল কনটেন্ট দেখা যায় ডিজনি প্লাস এ। ব্যবহারকারী disneyplus.com এ প্রবেশ করে সাইন আপ করতে পারবে এবং তার জন্য যেকোনো একটি প্রাইসিং প্লান বেশি নিবে।

ডিজনি প্লাস সাইন আপ করার পরে পরবর্তীতে লগইন করলে আপনার অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে পারবেন। ডিজনি প্লাস ব্যবহার করার জন্য আপনার প্রয়োজন ইন্টারনেট কানেকশন এবং একটি ডিভাইস। মোবাইল কম্পিউটার ল্যাপটপ স্মার্ট টিভি সবগুলোতেই ডিজনি প্লাস কানেক্ট করা যায়। এছাড়াও প্লেস্টেশন 4, roku, স্পক্স ওয়ানপ্লাস এ ধরনের ডিভাইস গুলোতে দিস্নে প্লাস সাপোর্ট করে।

ডিজনি প্লাস এর সুবিধা সমূহ

আনলিমিটেড ডাউনলোড করা যায়

ডিজনি প্লাস থেকে টিভি সিরিয়াল, অথবা আপনার পছন্দের যেকোন ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। ডিজনি প্লাস একাউন্টধারী ডাটা অথবা ওয়াইফাই দুটো মাধ্যমেই ডিজনি প্লাস প্ল্যাটফর্ম থেকে ভিডিও ডাউনলোডের অনুমতি পায়।

স্বল্প খরচ

অন্যান্য স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম গুলোর তুলনায় ডিজনি প্লাস এর খরচ অনেক কম। এক বছর অর্থাৎ ইয়ারলি প্ল্যানিং কিনলে খরচ আরো কমে যায় সে কারণে ব্যবহারকারী খুবই কম খরচে ডিভাইসে ডিসকানেক্ট করতে পারে এবং ব্যবহার করে।

যেকোনো সময় যেকোনো স্থানে দেখা যায়

যেহেতু ব্যাবহারকারি তার ডিসনী প্লাস একাউন্টে প্রবেশ করতে পারে মোবাইল অথবা ল্যাপটপ থেকে তাই যে কোনো যায়গায় ব্যাবহারকারি ডিসনী প্লাস একাউন্টে প্রবেশ করে অথবা কানেক্ট করে ডিসনী প্লাস এর কন্টেন্ট গুলো উপোভোগ করতে পারবেন

নেটফ্লিক্সের পাশাপাশি ডিসনী প্লাস এখন খুবই জনপ্রিয় একটি অনলাইন স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম । দুটি প্লাটফর্ম দুই রকম । আপনার কি ধরনের শো পছন্দ সে হিসেবে আপনি নির্ধারণ করে নিতে পারবেন আপনার কোন অনলাইন স্ট্রিমিং প্লাটফর্মে সাবস্ক্রিপশন কেনা উচিত। 

যারা সল্প খরচে অনলাইন স্ট্রিমিং প্লাটফর্মে সাবস্ক্রিপশন কেনার কথা ভাবছেন তারা অবশ্যই ডীসনী প্লাস একাউন্টে সাবস্ক্রিপশন নিতে পারেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button