লাইফস্টাইল

ভ্রমনে দরকারি কিছু টিপস যা আপনারও জানা দরকার

ভ্রমণ আমাদের সকলের প্রিয়। আনন্দদায়ক ভ্রমণ প্রশান্তির কারণ হতে পারে। দীর্ঘ সময় এর ধকল থেকে মুক্তি দিতে পারে একটি আনন্দদায়ক ভ্রমণ। দীর্ঘ অথবা সংক্ষিপ্ত ভ্রমণের ক্ষেত্রে পরিকল্পনা খুবই জরুরী। পরিকল্পনামাফিক একটি ভ্রমণ সম্পন্ন করতে পূর্ব প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে হয়। আনন্দদায়ক একটি ভ্রমণের জন্য অপরিহার্য বিষয় হলো নিরাপত্তা এবং বাজেটের মধ্যে ভ্রমণ। ভ্রমণ কে কিভাবে আনন্দদায়ক এবং নিরাপদ করা যায় সে বিষয়ে কয়েকটি টিপস সেখানে প্রদান করা হলো। এই টিপসগুলো অবশ্যই ভ্রমণের আগে জেনে নিলে আপনার ভ্রমণ কে আনন্দদায়ক করে তুলবে।

ভ্রমণের জন্য একটি তারিখ বেছে নেওয়া

ভ্রমণের পূর্বে ভ্রমণের জন্য অবশ্য একটি নির্দিষ্ট তারিখ বেছে নিতে হবে। ভ্রমণের জন্য তারিখ নির্দিষ্ট করলে সে তারিখ অনুযায়ী সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা যায়। ভ্রমণের জন্য সবচেয়ে ভালো দিন হতে পারে একটি ছুটির দিন। ভ্রমণের তারিখ নির্ধারণের জন্য অবশ্যই আবহাওয়া সম্পর্কে পূর্ণ ধারণা নিতে হবে এবং আবহাওয়ার খবর জেনে নিতে হবে। ভ্রমণের দিন অনুযায়ী পূর্বেই টিকিট কেটে নিতে হবে যদি ভ্রমণ স্থল দূরে হয়। কাছে হলে সে স্থানটি সম্পর্কে ধারণা নিতে হবে।

ভ্রমনসূচী চূড়ান্ত করা

ভ্রমণে যাওয়ার পরিকল্পনা করার সময় অবশ্যই ভ্রমনসূচী চূড়ান্ত করে নিতে হবে। ভ্রমনসূচী চূড়ান্ত থাকলে সে অনুযায়ী ভ্রমণের সবকিছু গোছানো যায়। এবং ভ্রমণের পূর্বে আপনার টিকিট কেটে নিতে হবে। কর্মস্থল দূরে হলেও অর্থাৎ প্লেনে করে যেতে হলে অবশ্যই ভ্রমণের দিন সকালে অথবা ভ্রমণের দিন ভোরে টিকিট কাটলে আপনি কিছুটা টাকা সেভ করতে পারবেন। তবে যারা সকল সূচি চূড়ান্ত করে ফেলেছেন তাদের অবশ্যই অগ্রিম টিকিট কেটে রাখতে হবে।

ভ্রমণের জিনিসপত্র প্যাকিং করা

ভ্রমণের জিনিসপত্র অবশ্যই ভ্রমণের তারিখের পূর্বে গোছগাছ করে প্যাকিং করে ফেলতে হবে। ভ্রমণের তারিখ অনুযায়ী এবং ভ্রমণের দিন আবহাওয়া অনুযায়ী যে সকল জিনিসপত্র প্যাকিং করা দরকার সেগুলো একটি লিস্ট বানিয়ে প্যাকিং করতে হবে। প্রত্যেকটি ব্যাগ গুছিয়ে ব্যাগ গুলোতে একটি নাম্বারিং ট্যাগ ব্যবহার করা ভালো। অবশ্য একটি প্লাস্টিকের ব্যাগ সাথে নিতে হবে কারণ ভেজা জিনিসপত্র সেই প্লাস্টিকের ব্যাগে রাখা যেতে পারে।

ভ্রমণের জন্য যেসকল জিনিসগুলো আপনার ব্যাগে থাকা উচিত

  • একটি টাওয়েল
  • একজোড়া স্যান্ডেল অথবা জুতা
  • যে স্থানে ভ্রমণ করছেন তার একটি মানচিত্র
  • একটি তালা
  • পোর্টেবল ওয়াইফাই রাউটার
  • পানির বোতল
  • ফার্স্ট এইড বক্স
  • টর্চ লাইট
packing
ভ্রমনের তারিখের পূর্বেই ব্যাগ গুছিয়ে নিতে হবে

টাকা

ভ্রমণের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ মানিব্যাগে বহন করা সঠিক নয়। আপনি কিছু টাকা মানিব্যাগে অর্থাৎ কোয়ালিটি এবং কিছু টাকা ক্রেডিট অথবা ডেবিট কার্ডে ব্যবহার করতে পারেন। অনেকেই ভ্রমণে গিয়ে চিন্তাইকারি হতে পারেন সেক্ষেত্রে ক্রেডিট কার্ড অথবা ডেবিট কার্ড ব্যবহার করলে সেই ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়।

স্বাস্থ্য

আপনাকে অবশ্যই আপনার স্বাস্থ্যের দিকে খেয়াল রাখতে হবে ভ্রমণের পূর্বে। প্রয়োজনীয় কিছু ওষুধ যেগুলো আপনি নিত্যদিনে ব্যবহার করেন সেগুলো অবশ্যই ব্যাকপ্যাকিং করার সময় সাথে নিতে হবে।

লিস্ট তৈরি করা

একটি ভ্রমণ লিস্ট তৈরি করতে হবে এবং সেখানে চেকবক্স রাখতে হবে। প্রত্যেকটি কার্যক্রম অথবা প্রত্যেকটি প্রয়োজনীয় জিনিস নেওয়ার সাথে সাথে সেই লিস্ট থেকে টিক মার্ক দিতে হবে।

 travel check list

যোগাযোগ

ভ্রমণের পূর্বে অবশ্যই আপনার ফোন থেকে নিয়েছেন কিনা তা চেক করে নিবেন। শুধুমাত্র ফোন সাথে নিলে হবে না ফোনের চার্জার ঠিক মত নিয়েছেন কিনা সেটাও খেয়াল করবেন। বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে সেই দেশের সিম কার্ড সংগ্রহ করে নিতে হবে ।

নিরাপত্তা

ভ্রমণের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা ব্যাপারটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ভ্রমণের জন্য আগে অবশ্যই বাসায় একজনকে রেখে যেতে হবে। ভ্রমণে যাওয়ার কথা পরিবারের কয়েকজন কে জানিয়ে যেতে হবে। হয়ে যাচ্ছেন সে বিষয়ে অন্তত কয়েকজনকে অবগত করতে হবে। দেশের বাইরে ভ্রমণ করলে অবশ্যই দূতাবাসের ঠিকানা ভাল হবে জেনে নিতে হবে এবং দূতাবাসের ফোন নাম্বার সাথে রাখতে হবে।
 
ভ্রমন জ্ঞানের একটি বড় মাধ্যম। ভ্রমনে গিয়ে মানুষ বাহিরের জগত সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করতে পারে এবং তাদের জ্ঞানের পরিধি বাড়ে। আবার যারা অনেক উদাসীন বা ডিপ্রেসড থাকেন তাদের জন্য একটি আনন্দ ভ্রমন বয়ে আনতে পারে সমাধান। ভ্রমন করে মানুষ বিশ্ব সম্পর্কে জানতে পারে । ভ্রমন মানুষকে বাস্তব অভিজ্ঞতা শেখায়। ভ্রমন একটি বিশ্বয়কর অভিজ্ঞতা । সব মানুষেরই বছরে অথবা ছয়মাসে একবার ভ্রমন করা উচিত। এটি মানুষের মনকে প্রফুল্ল রাখে। শরীর ও মনের সুস্থতার জন্য ভ্রমন অপরিহার্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button