প্রযুক্তি

২০২২ সালের সেরা ৫ টি গেমিং ফোন

২০২২ সালের সেরা গেমিং ফোন । সেরা গেমিং ফোন ২০২২। ২০২২ সালের সেরা গেমিং ফোন কোনটি? ২০২২ সালের সেরা গেমিং ফোন কোনগুলো? এ বছরের সেরা গেমিং ফোন। 

মোবাইল গেমিং বর্তমানে খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। প্রযুক্তির বদল এর সাথে সাথে মোবাইল গেম এর জন্য মানুষ অনেক বেশি আগ্রহী হয়ে উঠেছে। মোবাইল গেমের শুরুটা যদিও বা নকিয়া ফোনের বিভিন্ন মডেলে হয়। কিন্তু বর্তমানে বাজারে এমন কিছু মোবাইল আছে যেসকল ফোনগুলো মোবাইল গেমিং এর মাত্রা অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছে। মোবাইল গেমিং এর শুরুর দিকে অনেকেই টেম্পল রান বা ক্যান্ডি ক্রাশ সাগা এর মত মজাদার গেম গুলো খেলা শুরু করেছিলেন। বর্তমানে রেসিং, সিমুলেশন বা ফুটবল সবক্ষেত্রেই মোবাইল গেমিং অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছে। বর্তমানে গেমিং ডেভেলপাররাও অনেক ভালো ভালো গেম ডেভেলপ করছে যেগুলো অনেকটা কম্পিউটারের সাথে পাল্লা দিয়ে চলছে।

২০২২ সালের সেরা গেমিং ফোন

বর্তমানে মোবাইল গুলো অনেক বেশি পাওয়ারফুল হয়ে গেছে। ভালো প্রসেসর সাথে দুর্দান্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ এবং অনেক বেশি স্টোরেজের ফোন গুলো সবার কাছে খুবই বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। অবসরে সবাই মোবাইলে একটি গেম খেলে ক্লান্তি দূর করতে চায়। সে কারণে বেশ কিছু গেম তারা ফোনে ইন্সটল করে রাখে। ফোনে গেম খেলার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল পোর্টেবিলিটি। কম্পিউটারের সব জায়গায় বহন করা যায় না আবার ল্যাপটপের গেম গুলো অনেক বেশি বাড়ি সেকারণে যখন-তখন খেলা যায় না। কিন্তু মোবাইলের গেম গুলো যেমন সহজে খেলা যায় কত সহজেই মোবাইল বহন করা যায়। এর কারণে বর্তমানে মানুষ গেমিং মোবাইল গুলো অনেক বেশি পছন্দ করেছেন। গেমিং মোবাইল গুলো ব্যবহারকারীকে প্রদান করে থাকে অনেক ভালো পারফর্মেন্স। গেমিং ফোনের প্রসেসর খুবই ভালো হয়। গেমিং ফোনের স্টোরেজ এবং র্যাম অনেক বেশি থাকে যার ফলে গেম খেলে ফোনে কোন হিটিং ইস্যু হয়না।

আরো দেখুনঃ  ২০২২ সালের সেরা মোবাইল ভিডিও এডিটিং অ্যাপ কোনগুলো -জেনে নিন

মোবাইলের জন্য জনপ্রিয় গেম গুলো হল ফর্টনাইট, পাবজি মোবাইল, কল অফ ডিউটি মোবাইল, মোবাইল লেজেন্ড , ফ্রী ফায়ার এসকল গেম গুলো সারা বিশ্বে অনেক বেশি খেলা হয়ে থাকে।

Red Magic 7

খুবই ভালো মানের ডিসপ্লে সহ একটি গেমিং কোন চাইলে এই মোবাইল ফোনটি আপনার জন্য খুবই ভাল একটি ফোন হতে চলেছে। 2022 সালের সেরা গেমিং ফোন গুলোর মধ্যে এটি একটি। এই ফোনটি জনপ্রিয়তার মূল কারণ হল এর ডিসপ্লে। 165 হার্জের অলেড  ডিসপ্লে এই ফোনটি মূল আকর্ষণ। এছাড়া একটি গেমিং ফোনে যা কিছু দরকার তার সবগুলোই পাবেন এই ফোনে। গেম খেলার সময় ফোনটির পারফরম্যান্স অসাধারণ। 6.8 ইঞ্চির অসাধারণ ডিসপ্লে প্যানেল টি গেম খেলার সময় আপনাকে দিবে এক অসাধারণ অভিজ্ঞতা। 12 16 18 জিবি র্যাম এর তিনটি ভেরিয়েন্ট পাওয়া যাবে এই মোবাইল ফোন। এছাড়া 128 ও 256 জিবি দুইটি স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট পাওয়া যাবে এই গেমিং স্মার্টফোনটি। প্রয়োজন অনুসারে গেম খেলার সময় কোনটিতে কুলিং ফ্যান এডজাস্ট করা যাবে এক্ষেত্রে ফোন গরম হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না।

আরো দেখুনঃ  অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ইন্টারনেটের স্পিড চেক করার পদ্ধতি - জেনে নিন

Oppo Find X5 Pro

অপর এই ফোনটি গেমিং এর জন্য অসাধারন পারফরম্যান্স প্রদান করে। অসাধারণ এই ফোনটি অনেক চিকন এবং হ্যান্ডি। 208 গ্রামের ফোনটি হাতে ধরলে খুবই কম্ফোর্টেবল ফিল হবে। এছাড়া স্টোরেজঃ ডিসপ্লে সহ অন্যান্য সকল সেক্টরে কোনটি একটি গেমিং ফোন এর সাথে তুলনীয়। এই ফোনটি ফ্লাগশিপ ফোন। মাত্র 30 মিনিটে 94% পর্যন্ত চার্জ করা যায় ফোনটিতে। অসাধারণ ডিসপ্লে গেমিং এর সময় প্রদান করে অসাধারণ এক অভিজ্ঞতা। যারা অনেক বেশী গেমিং করেন তারা এই ফোনটি ব্যবহার করতে পারেন। 120 হারজ রিফ্রেশ রেট থাকাই যে কোন এপ্লিকেশন ব্যবহার এনিমেশন গুলো খুবই সুন্দর ভাবে দেখা যায়।

Asus ROG Phone 5

আসুস সবসময় গেমিং ফোনের জন্য খুবই জনপ্রিয় একটি ব্র্যান্ড। যারা অনেক বেশি গেমিং করেন তাদের জন্য এই ফোনটি খুবই ভাল একটি ফোন হতে পারে। গেমিং করার জন্য এই ফোনটিতে সকল ফিচার দেওয়া হয়েছে। বক্সের সাথে কোন কুলার প্রদান না করলেও ব্যবহারকারী এক্সট্রা কুলার ব্যবহার করতে পারবেন ফোনটি সাথে। স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটি চিপসেট হিসেবে। দুইটি 3000 এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে ফোনটির সাথে সে কারণে অনেক বেশি সময় পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়। এছাড়া বড় ডিসপ্লে এবং অসাধারণ ডিসপ্লে পারফরম্যান্সের জন্য গেমিং পারফরমেন্স অনেক ভাল হয়। যদি একটু মোটা ও ভারী ডিজাইন রয়েছে এই ফোনটিতে কিন্তু পারফরম্যান্সের দিক বিচার করে ফোনটি একটি সেরা গেমিং ফোন। 2022 সালের সেরা গেমিং ফোন গুলোর মধ্যে এই ফোনটি একটি।

আরো দেখুনঃ  ২০২২ সালের স্মার্টফোন থেকে কম্পিউটারে ডাটা ট্রান্সফার পদ্ধতি - জেনে নিন

Poco X3 Pro

যারা গেমিং ফোন খুঁজছেন কিন্তু বাজে কিছুটা কম তাদের জন্য এই ফোনটি অসাধারণ একটি পছন্দ হতে পারে। পোকো সিরিজের সবগুলো ফোনে কিছু চমক থাকে। পোকো X3 প্রন্টিকা গেম খেলার সময় পাওয়া যায় অসাধারণ পারফরম্যান্স। এছাড়াও ব্যাটারি পারফরমেন্সে অনেক ভালো। এই ফোনটি একটি ফ্লাগশিপ ফোন এবং এর সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হলো এর প্রাইস। কনফিগারেশন অনুযায়ী এর প্রাইস অনেকটাই আফোর্ডবল। লো বাজেট গেমাররা এই ফোনটি ব্যবহার করতে পারেন গেম খেলার জন্য। বর্তমানে জনপ্রিয় বেশিরভাগ গেম এই ফোনটিতে অনেক ভালোভাবে প্লে করা যায়। তাই লো কিংবা বিগ বাজেটের গেমাররা এই ফোনটি নিতে পারেন গেমিং করার জন্য।

Motorola Moto G200

মটোরোলার এই ফোনটি একটি গেমিং ফোন। গেমিং এর সময় পাওয়া যাবে অসাধারণ পারফরম্যান্স। যারা খুব বেশি গেমিং করেন না তাদের জন্য এই ফোনটি ভালো একটি পছন্দ হতে পারে। ফোনটি দেখতে অসাধারন এবং খুবই হ্যান্ডি। আবার গেমিং এর সময় পাওয়া যাবে অসাধারণ পারফরম্যান্স । ফোনটি গেমিংয়ের এক্সট্রা কোন অ্যাক্সেসরিজ প্রদান না করলেও গেমিং এর সময় ভালো পারফর্মেন্স পাওয়ার কারণে এটি আপনার একটি পছন্দের ফোন হতে পারে। যারা ঠুক ঠাক গেমিং করেন আবার অফিশিয়াল কিংবা একটি সুন্দর দেখতে ফোন নিতে চান তাদের জন্য এই ফোনটি একটি ভালো পছন্দ হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button